1. rashedhabiganj@gmail.com : admin2020 :
  2. habiganjerayna@gmail.com : Habiganjer Ayna : Habiganjer Ayna
রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ০৪:১৮ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
পরিবেশ দূষণের দায়ে স্কয়ার ডেনিম কোম্পানীকে লাখ টাকা জরিমানা হবিগঞ্জে সায়হাম কটন মিলের আগুন থামেনি, জেলা প্রশাসকের পরিদর্শন অবশেষে ডিসির নির্দেশে বহু অপকর্মের হোতা প্রতারক আফজাল ধরাশায়ী, অতঃপর জেলহাজতে চুনারুঘাটে ৭ শতাধিক পরিবারে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করেছে প্রবাসী গ্রুপ ‘হবিগঞ্জ জেলার পুলিশ মুক্তিযোদ্ধাদের বীরগাথা’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন শুদ্ধাচার পুরস্কারের টাকায় চিকিৎসকদের সুরক্ষায় গ্লাস কর্ণার করে দিলেন সওজ নির্বাহী প্রকৌশলী হবিগঞ্জে মৎস্য সপ্তাহে জেলা প্রশাসকের নতুন কর্মসূচী, ‘জাল দাও, ত্রাণ নাও’ হবিগঞ্জে বিপূল পরিমাণ অবৈধ জাল আটক করে পুড়িয়ে ধ্বংস, কারাদণ্ড হবিগঞ্জে জেলেদের নিরাপত্তায় লাইফ জ্যাকেট ও প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ বিতরণ মাধবপুরে অবৈধ বালু উত্তোলন ও পরিবহনের দায়ে ২ জনকে অর্থদণ্ড

লাখাইয়ে নগদ সহায়তার তালিকায় অনিয়ম, ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৪ জুন, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার : প্রধানমন্ত্রীর নগদ সহায়তার তালিকা প্রণয়নে অনিয়মের অভিযোগে হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলার মুড়িয়াউক ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম মলাইকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ ইউনিয়ন পরিষদ-১ শাখার উপসচিব মোহাম্মদ ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেন।
এতে বলা হয়, ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম মলাইয়ের বিরুদ্ধে সরকারি নিয়ম-নীতির ব্যত্যয় ঘটিয়ে প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে নগদ অর্থ সহায়তা কর্মসূচির সুবিধাভোগীর তালিকা প্রণয়নে অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ স্থানীয় তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে। এ প্রেক্ষিতে অভিযুক্ত চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেন জেলা প্রশাসক। প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়, উল্লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে মুড়িয়াউক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম মলাইকে স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন, ২০০৯ এর ৩৪(১) ধারা অনুযায়ী তার পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।
উল্ল্যেখ্য, করোনা ভাইরাসের দূর্যোগ কাটাতে হবিগঞ্জেও শুরু হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর নগদ অর্থ সহায়তা প্রদানের কাজ। কিন্তু তালিকা চুড়ান্ত হওয়ার আগেই লাখাই উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়নে ধরা পড়ে মারাত্মক অসঙ্গতি। মুড়িয়াউক ইউনিয়ন চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলামের নিকটাত্মীয় আনোয়ারের মোবাইল (০১৯৪৪৬০৫১৯৩) নাম্বার ব্যবহার হয়েছে ৯৯ জনের নামের বিপরীতে। চেয়ারম্যানের চাচাতো ভাই আক্তার মিয়ার (০১৭৪৪১৪৯২৩৪) নাম্বার দেয়া হয়েছে ৯৭ জনের নামের সাথে। চাচা শাকিল হকের নাম্বার (০১৭৮৬৩৭৪৩৯১) বসানো হয়েছে ৬৫ জনের পাশে। এছাড়া চেয়ারম্যানের নিকটাত্মীয় নবীর মিয়ার নাম্বার (০১৭৬৬৩৮০২৮৪) দেয়া হয়েছে ৪৫ জনের নামের পাশে। এছাড়া স্বামী-স্ত্রীসহ একই পরিবারের ৬ জনের নাম দেয়া হয় তালিকায়। এসব অনিয়মের বিচার চেয়ে স্থানীয়রা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। এসব অসঙ্গতি নজরে আসার পরই জেলা প্রশাসকের নির্দেশে তালিকা সংশোধন করে উপজেলা প্রশাসন। জেলা প্রশাসকের নির্দেশে অনিয়মের সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক নুরুল ইসলামকে প্রধান করে গঠন করা হয় তদন্ত কমিটি। পরে তদন্ত শেষে তিনি ঐ চেয়ারম্যানকে অভিযুক্ত করে রিপোর্ট পেশ করেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2020
Theme Developed By ThemesBazar.Com